নিজস্ব প্রতিবেদন: নিউজ অব ঢাকা,
মহান রবের পক্ষ থেকে পৃথিবীতে সবচেয়ে সুন্দর উপহার হল স্ত্রী। পৃথিবীতে একাকীত্ব দূর করার জন্য মানুষ বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।
এর ফলে মহান সৃষ্টিকর্তা রেখেছেন অনেক রোগ মুক্তি এবং তৃপ্তি,

১/ নিদ্রা: শারীরিক মিলনের ফলে পুর্নতৃ্প্তিতে যে অক্টো রিজন হরমোন নিঃসৃত হয় তা ঘুমের জন্য খুবই সহায়ক। পর্যাপ্ত ঘুমের সাথে অন্যান্য রোগ নিরাময় খুবই গুরুত্বপূর্ণ

২/যৌন মিলনে বেশি শক্তিশালী করে: শারীরিক মিলনের ফলে পেশীর এক ধরনের ব্যায়াম হয়। যা রক্ত সঞ্চালনের জন্য সহায়ক।

৩/ মিলনের ফলে মূত্রনালির ক্যানসার ঝুঁকি কমায়: নিয়মিত বীর্যপাত বিশেষ করে

২০ এর পুরুষের ক্ষেত্রে পরবর্তী বয়স্ক অবস্থায় মূত্রনালীর ক্যান্সার ঝুঁকি কমিয়ে থাকে।

৪/ যৌন মিলনে ব্যথা নিরাময় হয়: অন্তরঙ্গতার ফলে হরমোনের প্রচন্ড তরঙ্গায়িত হয় যার ফলে শারীরিক ব্যথা কেটে যায়।

৫/ আত্মসম্মানবোধ: ইউনিভার্সিটি অফ টেক্সাসের গবেষকদলের উদ্ভাবিত আর্কাইভ সেক্সুয়াল বিহাভিয়ার জার্নালে প্রকাশিত হয় এই তথ্য।

৬/ স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ভালবাসা বৃদ্ধি করে: যৌন মিলনের ফলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে একে অপরের প্রতি সম্মান এবং ভালোবাসা সৃষ্টি হয় এবং সম্পর্ক শক্তিশালী হয়।

৭/হৃদপিন্ডের স্বাস্থ্য ভালো রাখে: অনেক বয়স্ক পুরুষ না মনে করেন যৌনমিলনের ফলে স্ট্রোক হতে পারে। কিন্তু কথা দিয়ে সব সময় সত্য নয়, কারণ ৯১৪ জন মানুষকে ২০ বছর যাবৎ পর্যবেক্ষণ করে যৌন মিলনের সাথে স্ট্রোকের কোন সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়নি (জার্নাল অফ এপিদেমিওলজি এন্ড কমিউনিটি হেলথ)

৮/ অতিরিক্ত ক্যালোরি দহন করে: স্বামী-স্ত্রীর মাঝে মিলনের ফলে শারীরিক যে অতিরিক্ত ঝুঁকিপূর্ণ ক্যালোরি থাকে তা দূর করে শরীরকে মজবুত রাখে।

৯/ যৌন মিলনে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

১০/ মিলনের ফলে দুশ্চিন্তা দূর করে: স্কটল্যান্ড থেকে প্রকাশিত বায়োলজিক্যাল ফিজিওলজি জার্নালে প্রকাশিত এক জরিপে এ তথ্য পাওয়া যায় যৌন মিলন একটি বড় সুবিধা হলো রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রেখে দুশ্চিন্তা রোধে সহায়ক ভূমিকা পালন করে।