বুধবার থেকে আবারো গণপরিবহনে ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়ছে

147

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সরকারের পক্ষ থেকে আঠারোটি নির্দেশনা দেয়া। তারমধ্যে বলা হয়েছে এই গণপরিবহনে ৫০ শতাংশ সিট ফাঁকা রাখতে হবে। এরই সূত্র ধরে বলা হয়েছে গণপরিবহনে ৬০ শতাংশ ভাড়া দুই সপ্তাহের জন্য বুধবার ৩১/২০২১ তারিখ হতে বৃদ্ধি করা হবে।

মঙ্গলবার ৩০ মার্চ, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ভার্চুয়াল কনফারেন্সে এ কথা জানিয়েছেন। করোনার সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ অন্যান্য নিয়মাবলী মেনে চলার বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি আরও জানিয়েছেন, দুই সপ্তাহের জন্য বুধবার ৩১ মার্চ, থেকেই এ নির্দেশনা চালু করা হবে। অন্যদিকে বিআরটিএ চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার বলেন, এ সংক্রান্ত নির্দেশনা মন্ত্রী গন্ধের পক্ষ থেকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সেই পরিপ্রেক্ষিতে আগামীকাল বুধবার থেকে তা কার্যকর করা হবে। নির্দেশনা কার্যকরের লক্ষ্যে বিআরটিএ থেকে সব ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে। ঢাকা সড়ক পরিবহন সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্লাহ বলেন, বুধবার থেকে বাস-মিনিবাসে নতুন ভাড়া আরম্ভ করা হবে। বিআরটিএ’র চেয়ারম্যান বিষয়টি পরিবহন নেতাদের জানিয়েছেন এবং এ বিষয়ে কার্যকর করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।

সোমবার ২৯ মার্চ বিআরটিএ প্রধান কার্যালয় সংস্থাটির চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার সাংবাদিকদের অর্ধেক যাত্রী পরিবহন করতে বাস ও মিনিবাসে শতকরা ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়ার কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, দেশের করোনা পরিস্থিতিতে পরিবহন মালিকদের সঙ্গে আলোচনা এবং প্রস্তাবনার ভিত্তিতে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়কে প্রস্তাবটি পাঠানো হয়েছে।

করোনার বর্তমান পরিস্থিতির কারণে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। তাতে গণপরিবহনে যাত্রীদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে। গণপরিবহনের ধারণ ক্ষমতার ৫০ শতাংশের অধিক যাত্রী নেওয়া যাবে না মর্মে নির্দেশনা রয়েছে। পাশাপাশি আরও একটি নির্দেশনা হচ্ছে, করোনার ঝুঁকি রয়েছে এমন এলাকায় গণপরিবহন চলাচল শিথিল বা প্রয়োজনে বন্ধ করা হবে।

তবে এ বিষয়টি ঠিক করবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে। করোনা সংক্রমণ বাড়ায় গত বছর ৩১ মে বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছিল সরকার। করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসলে পরবর্তীতে ভাড়া সাধারণভাবে করা হবে।