নেপালের প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন

183

দুই দিনের সফরে ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন বিদ্যা দেবী ভাণ্ডারী (নেপালের প্রেসিডেন্ট) বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের আমন্ত্রণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তিনি এই রাষ্ট্রীয় সফরে এসেছেন নেপালের প্রেসিডেন্ট।

আজ সোমবার ২২ মার্চ সকাল ১০টার সময় বিদ্যা দেবী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী চার্টার্ড বিমানটি ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছেছেন। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বিমানবন্দরে নেপালের প্রেসিডেন্টকে অভ্যর্থনা জানিয়েছেন। এসময় ২১ বার তোপধ্বনির পর, বিমানবন্দরে নেপালের প্রেসিডেন্টকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন তিন বাহিনীর সুসজ্জিত একটি দল।

বাংলাদেশে নেপালের প্রেসিডেন্ট পর্যায়ের এটিই সর্বপ্রথম এসেছেন। এর আগে ২০১৯ সালের নভেম্বর মাসে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ নেপাল সফর করেছিলেন। সফরসূচি অনুযায়ী নেপালের প্রেসিডেন্ট আজ সকালে ঢাকায় অবতরণের পরপরই সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে গিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবেন। এরপর বিকেলে নেপালের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে প্রথমে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন তারপরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাক্ষাৎ করবেন। ওই সাক্ষাতের পর নেপালের প্রেসিডেন্ট জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন। সেখানে তিনি ‘সম্মানিত অতিথি’ হিসেবে ‘নেপাল-বাংলাদেশ সম্পর্ক এবং বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ’ শীর্ষক বক্তব্য রাখবেন।

ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও সভাপতি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বক্তব্য দিবেন। এখানে বাংলাদেশ ও নেপালের শিল্পীদের পরিবেশনায় একটি সাংস্কৃতিক পর্বেরও আয়োজন করা হবে।

নেপালের প্রেসিডেন্ট আজ সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষ করে, সেখানে দুই দেশের মধ্যে চারটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষরিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রস্তাবিত চুক্তি বা এমওইউগুলো সই হলে দুই দেশের মধ্যে পর্যটন খাত, সাংস্কৃতিক যোগাযোগ ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরো শক্তিশালী হবে। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ নেপালের প্রেসিডেন্ট ও তাঁর প্রতিনিধিদলের সম্মানে আজ নৈশভোজের আয়োজন করবেন।

সফরসূচি অনুযায়ী নেপালের প্রেসিডেন্ট আগামীকাল মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সকালে ঢাকার ধানমণ্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করবে। দুপুরে নেপাল দূতাবাস পরিদর্শন শেষে নেপালের উদ্দেশ্যে রওনা দিবেন।